Press "Enter" to skip to content

ডাকাত হামলায় নাইজেরিয়ায় দুই শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছেন

নাইজার : ডাকাত হামলায় নাইজেরিয়ায় দুই শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছেন। নাইজেরিয়ার সেনাবাহিনীও ডাকাতদের সন্ধানে বিমান পরীক্ষা চালাচ্ছে।

এই ডাকাতরা জামফরা এলাকায় অতর্কিত হামলায় দুই শতাধিক লোককে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এই হামলার পরও বহু মানুষ নিখোঁজ রয়েছে। তাই মৃতের সঠিক সংখ্যা এখনও নির্ণয় করা যায়নি।

এ হামলার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মোটরসাইকেলে আসা ডাকাতরা একযোগে বেশ কয়েকটি গ্রামে অতর্কিত হামলা চালায়। এ ধরনের হামলার কারণে এখান থেকে প্রায় দশ হাজার মানুষ গ্রাম ছেড়ে পালিয়েছে।

এখন সেনাবাহিনীর সহায়তায় তাদের খোঁজ করা হচ্ছে। অন্যদিকে, নাইজেরিয়ার সেনাবাহিনীও কাছের বনাঞ্চলে এই ডাকাতদের উপস্থিতির ভিত্তিতে বিমান হামলা চালাচ্ছে।

যাইহোক, এটা বিশ্বাস করা হয় যে গত সপ্তাহে সেনাবাহিনীর বিমান হামলার কারণেই ডাকাতরা এমন হামলা চালিয়েছে। নাইজেরিয়ান কর্মকর্তা সাদিয়া উমর ফারুক বলেছেন, এ পর্যন্ত দুই শতাধিক লাশ দাফন করা হয়েছে।

একই হামলায় এসব মানুষ নিহত হয়েছেন। যারা গ্রাম ছেড়ে পালিয়েছে তারাও নিজ নিজ কমিউনিটি এলাকায় চলে গেছে। যাদের খোঁজ চলছে।

এই হামলার প্রথম তথ্য ছিল মাত্র ৫৮ জন নিহত হয়েছে।লোকজনের ভাষ্য, মোটরসাইকেলে করে প্রায় ৩০০ লোক দশটি গ্রামে এই হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে।

ডাকাত দল দশটি গ্রাম ঘিরে ফেলে 

আঙ্কা এবং বুকুয়ুম জেলার গ্রামগুলি ঘেরাও করার পরে, ডাকাতরা নির্বিচারে গুলি চালায়।
যেই তাদের সামনে আসত তাকে গুলি করে গুলি করে গ্রাম লুট করা হয়।

ঘটনার পর, নাইজেরিয়ার সেনাবাহিনী নিকটবর্তী গুসামি বনের পাশাপাশি নিকটবর্তী গ্রাম তাসামারে ডাকাতদের সন্ধান করছে।

সেনাবাহিনীর হামলায় এই অস্ত্রধারী ডাকাতদের দুই কিংপিনও নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে। প্রসঙ্গক্রমে, ধারণা করা হচ্ছে দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে সম্পত্তি বিরোধ এই হামলার মূলে রয়েছে।

Spread the love
More from HomeMore posts in Home »
More from অপরাধMore posts in অপরাধ »
More from নতূন খবরMore posts in নতূন খবর »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *