Press "Enter" to skip to content

উত্তর-পূর্বের পাহাড়ি এলাকায় প্রবল তুষারপাতে ফেঁসে গেলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

  • শিলংয়ে প্রবল তুষারপাত, বরফে ঢেকে গেল কার

  • স্কটল্যান্ডের শিলংয়ে প্রবল তুষারপাত হয়েছে

  • সিকিমে  ফাঁসলেন হাজার হাজার পর্যটক, পৌঁছেছে সেনা

ভূপেন গোস্বামী

গুয়াহাটি : উত্তর-পূর্বের পাহাড়ি এলাকায় প্রবল তুষারপাত হচ্ছে। যাইহোক, হিমালয় সংলগ্ন সমস্ত রাজ্যের উঁচু এলাকায় একই অবস্থা। কাশ্মীর থেকে উত্তরাখণ্ড, হিমাচল এবং পূর্ব ভারতেও তুষারপাত হচ্ছে। তুষারপাতের জেরে ঠান্ডা বেড়েছে, যার জেরে মানুষের সমস্যাও বেড়েছে।উত্তর ভারতে তীব্র শীত পড়ছে। পাহাড়ে তুষার পড়েছে। এর প্রভাব সমতল ভূমিতেও দেখা যাচ্ছে।

অরুণাচল প্রদেশের তাওয়াং-এ প্রবল তুষারপাতের কারণে আইনমন্ত্রী কিরেন রিজিজুর কাফেলা গতকাল কিছু সময়ের জন্য এখানে আটকে পড়ে। এ সময় গাড়ি থেকে নেমে কিরেন রিজিজু নিজেই নিজের গাড়িকে ধাক্কা দেন। গাড়ি ঠেলে ভিডিও করেন আইনমন্ত্রী। যা টুইটারে শেয়ার করে পর্যটকদের পরামর্শ দিতে গিয়ে লিখেছেন, বৈশাখী, সেলা পাস এবং নুরানং-এ প্রবল তুষারপাত হচ্ছে।

পর্যটকদের এসব এলাকায় যাওয়ার আগে সম্পূর্ণ তথ্য নিতে হবে। কারণ তুষারপাতের মধ্যে রাস্তাটি খুব বিপজ্জনক হয়ে উঠেছে এবং তাপমাত্রা মাইনাস ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত চলে যাচ্ছে। অন্য একটি টুইটে আইনমন্ত্রী কিরেন রিজিজু তুষারপাতের আরও কিছু ছবি শেয়ার করেছেন এবং লিখেছেন যে সেলা পাসের স্থানীয় লোকজন শেয়ার করেছেন।

ছবি তোলা হয়েছে। ভারতীয় সেনাবাহিনী, বর্ডার রোড অর্গানাইজেশন এবং স্থানীয় লোকেরা যখনই মানুষ আটকে যায় তখন খুব সাহায্য করে। তবে সবসময় সতর্ক থাকা ভালো। আমি ভারী তুষারপাত পরিস্থিতিতে অসহায়ত্ব অনুভব করেছি।

উত্তর-পূর্বের তুষারপাতের এই ভিডিও পোস্ট করলেন রিজিজু

ভিডিওতে, রিজিজুকে প্রবল তুষারপাতের মধ্যে পুলিশ কর্মীদের সঙ্গে হাঁটতে দেখা যায়। এ সময় আসা যাওয়া গাড়িগুলোকে পথ দেখাতেও সহায়তা করছেন মন্ত্রী।  তার এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ দেখা যাচ্ছে। একই সময়ে, কিছু টুইটার ব্যবহারকারীও এটিকে রিটুইট করেছেন এবং তথ্য ভাগ করে নেওয়ার জন্য মন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।আপনাদের জানিয়ে রাখি যে সিকিমেও ভারী তুষারপাত হচ্ছে।

যার কারণে এখানকার চাঙ্গু লেকের কাছে আটকা পড়েছে সহস্রাধিক পর্যটক। কর্মকর্তারা বলেছেন যে সিকিমের ভারত-চীন সীমান্তের কাছে বড়দিনের ছুটিতে আসা এক হাজারেরও বেশি পর্যটকের জীবন বিপর্যয়ের মধ্যে পড়েছিল।নাথুলার চাঙ্গু লেকের কাছে প্রবল তুষারপাতের কারণে পর্যটকদের এখান থেকে বের হওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে। সেনাবাহিনী এখানে মসিহা হিসেবে এসেছে এবং অত্যন্ত কঠিন অপারেশনের মাধ্যমে সবাইকে নিরাপদে বের করে আনা হয়েছে।

তবে সেনাবাহিনী উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে। তথ্য দিয়ে কর্মকর্তারা জানান, সেনাবাহিনী পর্যটকদের রাতে তাদের ক্যাম্পে থাকার জায়গা দিয়েছে।

স্কটল্যান্ডের পূর্বাঞ্চলে ভারী তুষারপাত

অন্যদিকে, ‘প্রাচ্যের স্কটল্যান্ড’ নামে পরিচিত মেঘালয়ের রাজধানী শিলং-এ শিলাবৃষ্টিতে বাড়ির ছাদ ও রাস্তা সাদা হয়ে গেছে। মেঘালয়ের রাজধানী শিলং-এ মৌসুমের প্রথম তুষারপাত হয়েছে, তারপরেই শীত বেড়েছে। তাপমাত্রা কমলে বরফের বাতাস ও শৈত্যপ্রবাহের প্রকোপও বেড়ে যায়।

শিলংয়ে তুষারপাতের ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। দেখতে খুব সুন্দর মনে হলেও হঠাৎ করে আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে মানুষ অনেক সমস্যায় পড়েছেন।যেখানে তুষারপাতের কারণে আপার শিলং-এর বেশিরভাগ এলাকায় সাদা চাদরের মতো দেখা গেছে। শহরের বেশির ভাগ এলাকা সাদা বরফে ঢাকা ছিল। এই কারণেই এই এলাকাটিকে ‘প্রাচ্যের স্কটল্যান্ড’ও বলা হয়। তুষারপাত হলে বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ এই দৃশ্য ধারণ করে।

Spread the love

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *