Press "Enter" to skip to content

জাতীয় নিরাপত্তার নামে সরকারের ইচ্ছামতো চলবে না 

  • পিগাসুস স্পাইওয়্যার মামলার তদন্ত করা হবে
  • এই কমিটি দুই মাসের মধ্যে রিপোর্ট দেবে
  • অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতির তত্ত্বাবধানে তদন্ত হবে
  • এই স্পাইওয়্যারটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে
জাতীয় খবর

দিল্লি : জাতীয় নিরাপত্তার নামে কোনও সরকার যা চায় তা করতে পারে না।এই স্পাইওয়্যারের মামলায় আজ সুপ্রিম কোর্টে, আদালতের নির্দেশে স্পষ্ট হয়ে গেল যে এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকার যে যুক্তি দিয়েছে তা আদালতের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়।

এর দ্বিতীয় উপসংহারটিও হল এই স্পাইওয়্যারটি কেন্দ্রীয় সরকার গ্রহণ না করার পরেও ব্যবহার করা হয়েছে। এর মাধ্যমে মানুষের গোপনীয়তাও লঙ্ঘন করা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্ট বিষয়টির তদন্তের নির্দেশ দেওয়ার সময় স্পষ্ট করেছে যে বিষয়টির নেতৃত্বে থাকবেন সুপ্রিম কোর্টের একজন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এবং তিনজন সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ এই তদন্ত কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত হবেন।

আগামী দুই মাসের মধ্যে এই কমিটি রিপোর্ট দেবে

এই ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারের ভূমিকার স্পষ্ট সমালোচনা করেছে শীর্ষ আদালত।আদালত বলেছে, কেন্দ্রীয় সরকারের এই মনোভাব অত্যন্ত দায়িত্বজ্ঞানহীন।

এ নিয়ে কেন্দ্র যা বলেছে তা সম্পূর্ণ অস্পষ্ট।তাই এটা স্পষ্ট যে, জাতীয় নিরাপত্তার নামে জনগণের গোপনীয়তায় হস্তক্ষেপ করার কোনো সুযোগ সরকার পায় না।তাই সরকারের যুক্তি- তর্কের পরও এই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ তদন্ত হবে।

আসুন আমরা আপনাকে বলি যে এই বিষয়ে, কেন্দ্রীয় সরকার জাতীয় নিরাপত্তার বরাত দিয়ে এই বিষয়ে আরও তথ্য দিতে অস্বীকার করেছে।অন্যদিকে, আজকের আদালতের আদেশে এটাও স্পষ্ট হয়েছে যে শীর্ষ আদালত সরকারের যুক্তির সাথে একমত নয়।

জাতীয় নিরাপত্তার আবেদন আদালতে খারিজ

এ থেকে এটাও স্পষ্ট যে, এটি দেশের কোনো একটি সরকারি সংস্থার নিয়ন্ত্রণে থাকা একটি পিগি স্পাইওয়্যার এবং এর মাধ্যমে মানুষের মোবাইল ভাঙচুর করা হচ্ছে।

তবে এর মাঝে সেনাবাহিনী আনুষ্ঠানিকভাবে স্পষ্ট করে দিয়েছে যে পিগাসাসের ক্ষেত্রে তাদের কিছু করার নেই।যার অর্থ হল এই কাজটি এমন কোনও সরকারি সংস্থার মাধ্যমে করা হয়েছে, যা আসলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অধীনে।

সাম্প্রতিক ঘটনাবলীর কারণে অনুমান করা হচ্ছে যে সম্ভবত বর্তমান দিল্লি পুলিশ কমিশনার রাকেশ আস্থানাও এর সঙ্গে যুক্ত।আন্তর্জাতিকভাবে এই পিগি স্পাইওয়্যারের ব্যবহার নিশ্চিত হওয়ার পর দেশ ছাড়াও অনেক সরকার তাদের তরফে তদন্ত শুরু করেছে।

Spread the love
More from আজব খবরMore posts in আজব খবর »
More from দেশMore posts in দেশ »
More from নতূন খবরMore posts in নতূন খবর »

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *