Press "Enter" to skip to content

সামুদ্রিক কড়ির আবরণ দেখে তৈরী করা গেছে মজবুত কাঁচ

  • তার প্রকৃতির বৈশিষ্ট্যের বুঝে বৈজ্ঞানিক অগ্রগতির কাজ চলছে

  • এটি প্রতিটি সমুদ্র সৈকতে বিক্রয়ের জন্য উপলব্ধ থাকে

  • একাধিক মাত্রার প্রোটিন একসঙ্গে শক্তি দেয়

  • মহাভারতেও সেই কড়ি খেলা থেকে যুদ্ধ

জাতীয় খবর

রাঁচি: সামুদ্রিক কড়ির অর্থাৎ শেলের গঠন দেখে, এমন একটি গ্লাস তৈরি করা হয়েছে যা ভারী থেকে ভারী চাপ সহ্য করতে পারে। প্রকৃতির বৈশিষ্ট্য অধ্যয়ন করে বিজ্ঞানকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে অতীতে সাফল্য রয়েছে।

এবার বিজ্ঞানীরা তৈরি করেছেন এমন কাঁচ যা সহজে ভাঙ্গবে না। বিশেষ বিষয় হল এটি একটি ছোট সামুদ্রিক প্রাণীর মানে কড়ির খোলশের বৈশিষ্ট্য দেখে তৈরি করা হয়েছে। আমরা সমুদ্রের কড়ির কথা ভালোভাবে জানি।

সাধারণত, যারা সৈকতে বেড়াতে যান তারা প্রায়ই তাদের সাথে এটি কিনে থাকেন। এটি পূজার জন্যও বহুবার ব্যবহৃত হয়। পুরানো কিংবদন্তি অনুসারে, মহাভারতের যুদ্ধের সূচনাও এই কড়ি দিয়ে জুয়া (জুয়া) হওয়ার কারণে হয়েছিল।

এই সামুদ্রিক কড়ির বিশেষ বিষয় হল এর খোল খুবই শক্তিশালী। অতএব, প্রকৃতির বৈশিষ্ট্যগুলি অধ্যয়ন করে, এই কড়ির বাইরের খোল অধ্যয়ন করে বিজ্ঞানীরা এমন একটি গ্লাস তৈরি করেছেন যা ভাঙে না।

এই কাচের কাঠামোও সমুদ্রের খোলসের উপর ভিত্তি করে তৈরি, যাকে ইংরেজিতে বলা হয় সাগর শেল। একটি শক্তিশালী আঘাতের কারণে, এটি বিচ্ছিন্ন হয় না, তবে প্লাস্টিকের মতো আচরণ করে।

গবেষকরা বিশ্বাস করেন যে বাণিজ্যিকভাবে এই ধরনের কাচ এখন মোবাইল ফোনের স্ক্রিনের জন্য আরও ভাল উপায়ে ব্যবহার করা যেতে পারে। এটি ভবিষ্যতে অন্যান্য বাণিজ্যিক এবং শিল্প অ্যাপ্লিকেশনেও ব্যবহার করা যেতে পারে, যেখানে কাজের সময় কাঁচ ভাঙার ঘটনা বেশি।

সামুদ্রিক কড়ির মতন এই কাঁচের অনেক আবরণ একসাথ

প্রকৃতপক্ষে, কাচের অপূর্ণতা হল যে প্রতিটি প্রকারে ভাল হওয়ার পরেও এটি চাপ সহ্য করতে সক্ষম হয় না এবং ভাঙ্গার পরে এটি সম্পূর্ণ অকেজো হয়ে যায়। অন্যদিকে, এটি তার স্বচ্ছতার কারণে বেশি ব্যবহৃত হয়।

ম্যাকগিল ইউনিভার্সিটির গবেষক দল সামুদ্রিক কড়ির বৈশিষ্ট্য দেখে একই ভিত্তিতে এই গ্লাস প্রস্তুত করেছে। প্রকৃতপক্ষে, সমুদ্রের শেলের বাইরের খোলসটিতে একটি মাত্র স্তর নয়, বরং অনেক সূক্ষ্ম স্তরের তৈরি একটি খোল।

এই কারণে, যখন অতিরিক্ত চাপ থাকে, এক সাথে জুড়ে থাকা সূক্ষ্ম স্তরগুলি একে অপরের মধ্যে চাপ ভাগ করে এবং আবরণটি বজায় থাকে।

এই গবেষণার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক অ্যালেন এহলিশার বলেন, এই নতুন কাচের প্রচলিত কাচের তুলনায় চাপ সহ্য করার ক্ষমতা পাঁচগুণ বেশি।

প্রকৃতপক্ষে এটি উল্লেখ করা প্রয়োজন যে সামুদ্রিক কড়ির মধ্যে মুক্তাগুলিও তৈরি করা হয়, যা একটি মূল্যবান রত্ন হিসাবে ব্যবহৃত হয়।

কিন্তু তার বর্মটি প্রথমবারের মতো মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। এর গঠন প্রাকৃতিকভাবে আশ্চর্যজনক, যা এটিকে শক্তি দেয়। এই কারণে, অনেক সামুদ্রিক প্রাণী ইচ্ছে করেও এর ক্ষতি করতে পারছে না কারণ এই খোলটি ভাঙা সহজ নয়।

এই শেলটি বিশ্লেষণ করে বিজ্ঞানীরা দেখতে পেয়েছেন যে এটি আসলে প্রোটিন পৃষ্ঠের একটি গাদা, যার রাবারের মতো বৈশিষ্ট্য রয়েছে, অর্থাৎ এটি প্রসারিততা সহ্য করতে পারে।

এই বর্ম, যা দেখতে মাটির পাথরের মতো, এই ধরনের অন্যান্য পৃষ্ঠের চেয়ে তিন হাজার গুণ শক্তিশালী হয়ে ওঠে।

প্রোটিনের স্তর দিয়ে তৈরি এই শেলটি অত্যন্ত শক্তিশালী

যেসব পদার্থ থেকে এটি তৈরি করা হয়, সেসব পদার্থের তেমন কোনো বৈশিষ্ট্য নেই, কিন্তু একে অপরের সঙ্গে বিশেষ উপায়ে মিশ্রিত হওয়ার পর তা অত্যন্ত শক্তিশালী হয়ে ওঠে।

গবেষণার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরাও এই আবিষ্কারের ব্যাপারে আশাবাদী কারণ এর বাণিজ্যিক উৎপাদনও তুলনামূলক কম খরচে করা যায়। একই বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক আলী আমিনী বলেন, তারা রঙ, পরিবাহিতা এবং অন্যান্য বৈশিষ্ট্য যুক্ত করে এই নতুন ধরনের গ্লাসকে পরবর্তী চরম পর্যায়ে নিয়ে যেতে চায়।

এটি এই নতুন গ্লাসে নমনীয়তা যোগ করবে। তারপর এটি আরো ফাংশন জন্য ব্যবহার করা হবে। তা সত্ত্বেও, বর্তমান পদ্ধতিতে তৈরি কাচটি স্মার্টফোন ছাড়াও যানবাহন এবং জানালার উইন্ডশিল্ডগুলিতে আরও ভালভাবে কাজ করতে পারে।

এই কাচের উপস্থিতি আকস্মিক চাপে কাচের টুকরো টুকরো হওয়ার কারণে দুর্ঘটনাও রোধ করবে কারণ এই কাচটি প্রচলিত চশমার মতো ভাঙবে না।

গবেষকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছিল সামুদ্রিক কড়ির খোলটির শক্তির দিকে, যা অনেক সামুদ্রিক প্রাণীর শক্তিশালী চোয়ালের চাপে ভেঙে পড়েনি।

এর পরে, এই গ্লাসটি এর গঠনের মাত্রা এবং এর সাথে জড়িত রাসায়নিকগুলির গঠন বুঝতে পেরে তৈরি করা হয়।

More from HomeMore posts in Home »
More from নতূন খবরMore posts in নতূন খবর »
More from প্রকৌশলMore posts in প্রকৌশল »
More from সমুদ্র বিজ্ঞানMore posts in সমুদ্র বিজ্ঞান »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *