Press "Enter" to skip to content

নির্জন রাস্তায় একজন লম্বা মহিলা ছূটে বেড়াচ্ছে রাতের বেলায় দেখুন ভিডিও

  • হঠাৎ সামনে দেখে প্রায় সবাই পালিয়ে যায়

  • গাড়ির আলোয় তাকে স্পষ্ট দেখা যায়

  • এখন কেউ গিয়ে বিষয়টি খতিয়ে দেখেনি

হাজারীবাগ: নির্জন রাস্তায় তাও আবার রাতের অন্ধকারে কেন বেশ লম্বা মহিলা কে ছুটে

বেড়াতে দেখলে যে কেই ঘাবড়ে যাবে। এই ঘটনা এখন হাজারীবাগ জেলার কটকমসান্ডি যাবার

নির্জন রাস্তায় দেখা যাচ্ছে। তবে এই ভিডিও কে বানিয়েছে বা এটা সত্যি না সাজানো, সেটি

এখন পর্য্যন্ত জানা যায় নি। তবে এই ঘটনার কথা জানাজানি হবার পরে সেই এলাকায় অনেক

রকম কথা ছড়িয়েছে।

ভিডিও তে দেখুন কি দেখেছে সেখান দিয়ে যাওয়া লোকেরা

এখন পর্যন্ত কেউই সেখানে অবস্থান করে বিষয়টি তদন্ত করেনি। বেশিরভাগ লোকেরা এটিকে

ডাইনী বলে বিশ্বাস করে পালিয়ে গেছে। গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮ টা নাগাদ আবার সেই

মহিলাকে এক ভাবে দেখা যায়। এক সাথ বেশ কিছূ লোক নিজেদের গাড়ী নিয়ে যাচ্ছলো বলে

সাহস করে তারা দাড়িয়ে এই ঘটনার ভিডিও তোলে। সেই সুত্রে এই ভিডিও নজর এসেছে।

সেখানকার ছড়ওয়া ড্যামের ওপর তৈরি পুলের পাশে নির্জন রাস্তায় দাড়িয়ে থাকা এই মহিলাকে

দেখে অনেক লোক পাশ কাটিয়ে পালিয়ে যায়। এদের ভিতরে কিছূ লোকের গাড়ির ব্যালেন্স

বিগড়ে গিয়েছিলো তবে কোন দূর্ঘটনা ঘটে নি।

নির্জন রাস্তায় এই ঘটনা দেখে অনেকেই ভয় পেয়েছে

এই অদ্ভুত লম্বা মহিলা যাত্রী এবং বাইক চালকদের জন্য ভয়ের কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। সেখান

দিয়ে সেই সময় মোটরসাইকিল নিয়ে বাড়ি ফিরে যাওয়া কিছূ লোককে কোন রকমে পাশ

কাটিয়ে পালিয়ে যেতেও দেখা গেছে। এই নির্জন রাস্তার কাছে শশ্মান আছে। তাছাড়া পাশেই

লোকেদের কবরও দেওয়া হয়। তাই এই ঘটনার সাথে ডাইনীর নাম আপনি থেকে জুড়ে গেছে।

লোকেরা এটাও বলে যে ড্যামে ডূবেও অনেক লোকের মৃত্যু হয়েছে। তাই কোন অশরীরী আত্মা

সেখানে এই ভাবে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তবে ভিডিও তোলা ছাড়া সেখান দিয়ে যাওয়া কেই সেখানে

দাড়িয়ে পুরো ঘটনাটি জানার চেষ্টা করে নি। তবে এই উদ্ভট ঘটনাটি নিয়ে মানুষের মধ্যে

বিশেষত সন্ধ্যায় সময় এই নির্জন রাস্তার জন্য একটি ভয়ের পরিবেশ রয়েছে। নির্জন ও

অন্ধকার রাত্রির মধ্য দিয়ে যাওয়ার সময়, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বাড়িতে পৌঁছানোর বিষয়ে

উদ্বেগ সকলের থাকে। এইরকম পরিস্থিতিতে হঠাৎ রাস্তায় কোনও গাড়ীর আলোয় কোনও

অদ্ভুত লম্বা মহিলা হাজির হলে লোকেরা ভয় পাওয়া স্বাভাবিক। যদিও এই মামলার তথ্য

পুলিশেও পৌঁছেছে তবে অন্যান্য কাজে ব্যস্ত থাকার কারণে পুলিশ পর্যায়েও এ বিষয়ে তদন্ত করা

হয়নি।

More from HomeMore posts in Home »
More from নতূন খবরMore posts in নতূন খবর »
More from ভিডিওMore posts in ভিডিও »

2 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *