Press "Enter" to skip to content

ভারত থেকে টিকা আসতে দেরি হওয়ায় বিকল্প ব্যবস্থা নিয়েছে ঢাকা

  • আমিনুল হক

ঢাকা : ভারত থেকে টিকা আসতে দেরি হওয়ায় বিকল্প ব্যবস্থা নিয়েছে ঢাকা। টিকা সংকটের

মুখে যাতে পড়তে না হয়, সে কারণে বিকল্প উৎস থেকে টিকা সংগ্রহের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে

বাংলাদেশ। এর ইমধ্যে টিকা উৎপাদনে নাম লেখাতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। রাশিয়া যৌথ উদ্যোগে

বাংলাদেশে টিকা উৎপাদনের সমঝোতা চুক্তিও সই হয়েছে। তবে রাশিয়ার টিকার প্রযুক্তি

গোপন রাখতে কড়া শর্ত রয়েছে। অ্যাস্ট্রাজেনেকার পাশাপাশি বিকল্প উৎস থেকে করোনার

টিকা পেতে প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে বাংলাদেশ।অপর দিকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি

ও বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের নির্বাহী পরিচালক নাজমুল হাসান পাপন এমপি বলেছেন,

‘মিষ্টি কথায় সব চলবে না। ন্যায্য পাওনা বুঝিয়ে দিতে হবে’। ভারত যে বাংলাদেশের ‘বন্ধু’

সেটা এখন বিবেচনার সময় এসেছে। বাংলাদেশ অগ্রিম টাকা দিয়েছে, সে অনুযায়ী টিকা দেবে

না, তা কোনো ভাবে গ্রহণযোগ্য নয়। সরকারের স্পষ্ট ভাষায় বলা উচিত, অগ্রিম টাকা

অনুযায়ী টিকা আমাদের দিতে হবে। সরকারের উচিৎ টিকার জন্য সেরাম কে চাপ দেওয়া।ড.

মোমেন বলেন, রাশিয়া থেকে স্পুটনিক-৫ টিকার পাশাপাশি রয়েছে চীন ও যুক্তরাষ্ট্র।

ভারত যে বাংলাদেশের ‘বন্ধু’ সেটা এখন বিবেচনার সময় এসেছে

চীনের উদ্যোগে দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক প্ল্যাটফর্ম থেকে টিকা আনতে জোরালো তৎপরতা

সরকার। ভারত থেকে টিকা আসতে দেরি হওয়ায় বাংলাদেশ বিকল্প ব্যবস্থায় হাঁটছে। চীন-

রাশিয়া, গ্যাভি-কোভ্যাক্সের সঙ্গে টিকা আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে সরকার। গ্যাভি-কোভ্যাক্স

থেকে ৬ কোটি ৮০ লাখ ভ্যাকসিন পাবে বাংলাদেশ। এরই অংশ হিসেবে প্রথম ধাপে আগামী

মে মাসের মধ্যে বাংলাদেশ ১ কোটি ৯ লাখ টিকা পাওয়ার কথা। ফাইজারের টিকা আনার জন্য

যুক্তরাষ্ট্রে সঙ্গেও আলোচনা চলছে। চীনের নেতৃত্বে নতুন ছয় দেশের প্ল্যাটফর্ম ‘এমার্জেন্সি

ভ্যাকসিন স্টোরেজ ফ্যাসিলিটি ফর কোভিড ফর সাউথ এশিয়া’ প্ল্যাটফর্মে যুক্ত হয়েছে

বাংলাদেশ। এতে আরও যোগ দিয়েছে পাকিস্তান, আফগানিস্তান, নেপাল ও শ্রীলঙ্কা।পাপন বলেন,

সরকারের স্পষ্ট ভাষায় বলা উচিত, অগ্রিম টাকা অনুযায়ী টিকা আমাদের দিতে হবে। দেড়

কোটি ভ্যাকসিনের টাকা দিয়েছি। সেটা আটকানোর কোনো অধিকার সেরামের নেই। শনিবার

ঢাকার একটি হাসপাতালে করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা

বলেন। তিনি বলেন, চুক্তি অনুযায়ী সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে এতদিনে দেড় কোটি ডোজ টিকা

পাওয়ার কথা। সরকার পুরো টাকাই দিয়ে দিয়েছে। অথচ হাতে পেয়েছে মাত্র ৭০ লাখ ডোজ

টিকা। বাকি ৮০ লাখ ডোজের জন্য সরকারের উচিত সেরামকে চাপ দেওয়া।

More from HomeMore posts in Home »
More from এশিয়াMore posts in এশিয়া »
More from দেশMore posts in দেশ »
More from নতূন খবরMore posts in নতূন খবর »
More from বাংলাদেশMore posts in বাংলাদেশ »

2 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *