Press "Enter" to skip to content

আসামের নির্বাচনী প্রচারে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর প্রবল ক্রেজ

  • চা বাগানে শ্রমিকদের সাথে বাছেন পাতা

  • প্রধানমন্ত্রীকে ২৫ লক্ষ চাকরির প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করেন

  • নারী ও মহিলাদের মধ্যে সক্রিয়

ভুপেন গোস্বামী

গুয়াহাটির : আসামের নির্বাচনী প্রচারে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর প্রবল ক্রেজ | কংগ্রেস অবিচ্ছিন্নভাবে

বিভিন্ন বিভাগে পৌঁছানোর এবং আসাম বিধানসভা নির্বাচনগুলিতে উজ্জীবিত করার জন্য

প্রতিনিয়ত তৈরি হচ্ছে | কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী রাষ্ট্রীয় সফরে রয়েছেন|

সোমবার তিনি কামাখ্যা মন্দিরে পূজাপাঠ ও দর্শন করেন এবং লক্ষিমপুর জেলার দলীয়

কর্মীদের সাথে দেখা করেন|তার যাত্রার পরবর্তী স্টপে মঙ্গলবার তিনি বিশ্বনাথ জেলার সাধুরূপে

চা বাগানে পৌঁছেছিলেন|এখানে বাগের অন্যান্য কর্মীদের মতো পোশাক পরিহিত দেখা গিয়েছিল

প্রিয়াঙ্কাকে| সে হাত দিয়ে বাগানে চা পাতা বাছাই করে ঝুড়িতে দিল| শাড়ি পরা, ৪৯ বছর

বয়সী তার মাথায় একটি ব্যান্ড দ্বারা ভারসাম্যযুক্ত তার পিঠে একটি ঝুড়ি ছিল| কোমরে একটি

ব্যাগও তিনি সাঁজোয়া হয়েছিলেন যে তিনি ৪০ টাকায় চায়ের পাতা তোলার কাজটি করেছিলেন|

চা বাগানের শ্রমিকদের জীবন সত্য ও সরলতায় পূর্ণ এবং তাদের শ্রম দেশের জন্য মূল্যবান|চা

শ্রমিকদের সাথে আলাপকালে, গান্ধী নিজের ছবি দিয়ে টুইট করেছিলেন, আজ আমি তাঁর কাজ

ৱুঝতে পেরেছিলাম, তার পরিবার ও তাঁর জীবনের কষ্টগুলি ভাল করেই উপলব্ধি করেছি| তিনি

আরও বলেছিলেন, তাঁর কাছ থেকে পাওয়া ভালোবাসা আমি ভুলব না|আগের দিন, চা এস্টেটে

তাঁকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানানো হয়েছিল, যার ছবি কংগ্রেসের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেলে

শেয়ার করেছেন|

আসামের সাথে কংগ্রেস নির্বাচনী রাজ্যের সব বিভাগে পৌঁছানোর চেষ্টা করছে

এবার রাজ্যের মূল প্রতিযোগিতাটি ভারতীয় জনতা পার্টি এবং কংগ্রেস-এআইইউডিএফ“এর

মধ্যে|কংগ্রেস নির্বাচনী রাজ্যের সব বিভাগে পৌঁছানোর চেষ্টা করছে|এ জন্য তিনি একটি

কৌশলের আওতায় কাজ করছেন| নির্বাচন বিশ্লেষকরা বিশ্বাস করেন যে কামাখ্যা মন্দিরে

প্রিয়াঙ্কার উপাসনা হিন্দু ভোটারদের আকৃষ্ট করার প্রয়াস| প্রিয়াঙ্কা এই দুই দিনের যাত্রাপথে

কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন সাতটি দলের জোটের সাথে যুবকদের এবং মহিলাদেরকে সংযুক্ত করার

চেষ্টা করছেন|সোমবার রাজ্যে দুটি সভা করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা|তাদের প্রথম বৈঠকটি লক্ষিমপুরের

যুবকদের সাথে এবং দ্বিতীয় কর্মসূচি গোহপুরে চা বাগানের কর্মী ও মহিলা স্বনির্ভর গোষ্ঠীর

সাথে অনুষ্ঠিত হয়েছিল|বিজেপিও এই দুটি গ্রুপের দিকে নজর রাখছে|লক্ষিমপুরে কংগ্রেস নেতা

বিজেপি সরকারকে আক্রমণ করে বলেছিলেন, ’আপনি রাজ্যের সবচেয়ে বড় শক্তি|আমি এখানে

এসেছি সমস্ত মানুষের জন্য একটি প্রোগ্রাম শুরু করতে|এই বিক্ষোভ এখন রাজ্যের প্রতিটি জেলা

ও ব্লকে অনুষ্ঠিত হবে| আপনার নেতাকে আপনার জানা দরকার|আপনি যদি সত্যটি না জানেন

তবে আপনি নিজের ভবিষ্যতটি সুরক্ষিত করতে পারবেন না| প্রধানমন্ত্রী মোদীকে প্রশ্ন করলেন

প্রিয়াঙ্কা গান্ধী !২৫ লক্ষ চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতির কী হল? তিনি বলেছিলেন যে বিজেপি

সরকার এখানে ২৫ লক্ষ চাকরীর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল কিন্তু পাঁচ বছরে তিনি ৮০,০০০ চাকরিও

দেয়নি|তিনি বলেছিলেন, ’নির্বাচন যত ঘনিয়ে আসছে, তারা স্কুটি বিতরণ করছে, স্বনির্ভর

গোষ্ঠীগুলিকে সহায়তা করছে|

৫ গ্যারান্টি কংগ্রেস দ্বারা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ

গত পাঁচ বছর ধরে তারা কী করছে?আপনার জীবন খুব কঠিন|তোমাকে চুপ করে থাকতে হবে

না| রাজ্যে মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধ বেড়েছে|সরকার অপরাধ বন্ধে কিছুই করেনি|আসামে

কংগ্রেস ক্ষমতায় থাকলে রাজ্যটির জন্য পাঁচটি গ্যারান্টি ঘোষণা করেছে|আসামের তেজপুরে

মেগা সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী| প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

বলেছিলেন যে আসাম আপনার মা এবং আপনি নিজের পরিচয় এবং অস্তিত্ব বাঁচাতে লড়াই

করছেন| বিজেপি সরকার আপনাকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি পূরণ করেনি এবং আপনার পরিচয়কেও

আক্রমণ করেছিল| আমরা আপনাকে প্রতিশ্রুতি গ্যারান্টি দিচ্ছি না|এই ৫ গ্যারান্টি আপনার

ভবিষ্যতের উন্নতি হয়| ১“ আমরা এমন একটি আইন করব যা এখানে ক্টকক প্রযোজ্য হবে না|

আসামের গৃহিণীদের জন্য, গৃহবধূ সম্মানকে মাসে ২০০০ টাকা দেওয়া হবে|২০০ ইউনিট বিদু্যত্

মুক্ত যা প্রতি মাসে ১৪০০ রুপি সাশ্রয় করবে|আমরা চা বাগানের কর্মীদের জন্য প্রতিদিন ৩

৩৬৫ টাকা পারিশ্রমিক দেব|আমরা যুবকদের ৫ লক্ষ কর্মসংস্থান করব ঙ্খঞ্চ তেজপুরে প্রিয়াঙ্কা

গান্ধীর মেগা প্রচারের সমাবেশে একটি সমুদ্রের লোক বেরিয়ে এল|আসাম কংগ্রেসের শীর্ষস্থানীয়

সমস্ত নেতারা জনসভায় প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে সমর্থন করেছিলেন|বিপিএফ প্রধান হাজরাম মহিলেরি,

যার দল সম্প্রতি মহাজোটে যোগ দেওয়া নেতা হাগরাম মহিলেরীও মেগা সমাবেশে উপস্থিত

ছিলেন|তবে আসাম বিধানসভা নির্বাচন তিন ধাপে অনুষ্ঠিত হবে|প্রথম পর‌্যায়ে, ২২ মার্চ ১২

টি জেলার ৪৭ টি আসনের জন্য ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে |দ্বিতীয় পর‌্যায়ে, ১৩ এপ্রিলের ৩৯ টি

আসনের জন্য ১ এপ্রিল ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে, এবং ১২ টি জেলার ৪০ টি বিধানসভা আসন

৬ এপ্রিলে ভোট হবে| ২ মেই ভোট গণনা করা হবে |

More from দেশMore posts in দেশ »
More from রাজনীতিMore posts in রাজনীতি »

2 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *