Press "Enter" to skip to content

বৌ ডিএসপি তার সাথে নকল আইপিএস ইউনিফর্ম পরে স্বামী , দেখুন ভিডিও

  • ছবি তে ধরা গেছে এই ধরনের ভূল আচরণ

  • ডিএসপি নিজেই এই সম্পর্কিত আইন জানেন

  • অভিযোগের পরে তার তদন্ত শেষ হয়েছে

দীপক নৌরঙ্গি

ভাগলপুরঃ বৌ ডিএসপি তাই স্বামী আইপিএসের পরও একটি পোষাক পরে ছবি তুলেছেন।

সেই ছবি কোন রকমে ভাইরাল হয়ে গেছে। তার পর শুরু হয়েছে তদন্ত। এটা সবাই জানে সে এই

ধরনের কাজ করা আইন বর্হিভুত।

ভিডিও তে বুঝে নিন পূরো ব্যাপারটি (হিন্দী)

তাই ঝামেলা বেশি বাড়ার পর বিহার পুলিস হেডক্বার্টর এই ব্যাপারের তদন্ত করিয়েছে। সম্ভবত

কেউ এই বিষয়ে দিল্লিতে অভিযোগ করেছে। সেখান থেকে আদেশ আসার পর বিহারের পুলিশ

সদর দপ্তর বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দেয়। ভাগলপুর এসএসপি তদন্ত করে তার রিপোর্ট পুলিশ

সদর দফতরে পাঠিয়েছেন। এর মধ্যে, ছবিটি প্রকাশ করা হয়েছে যে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির আইপিএস

ইউনিফর্ম এবং তার ডিএসপি স্ত্রীকে ফটোগ্রাফে দেখা গেছে। এই তথ্যটি অন্য অর্থ থেকে বেরিয়ে

এসেছে যে ডিএসপি এর স্বামী, যিনি একটি আইপিএস ইউনিফর্ম পরেন, দেশের কোনও রাজ্যে

আইপিএস পদে নেই। এই অভিযোগটি নিশ্চিত করার পর বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নিতিশ কুমার এই

বিষয়ে কোন পদক্ষেপ নেবেন, তার ওপরে প্রত্যেকেরই চোখ আছে। প্রকৃতপক্ষে, মুখ্যমন্ত্রীর ওপর

নজর এই জন্যে আছে কেননা এর আগে মুঙ্গের পুলিস ফায়রিংগে ঘটনায় যে আইপিএস অফিসার

লিপি সিংহ কে লোকেরা দোষী মনে করে, তাকে নীতীশ কুমার বাঁচিয়েছেন। আসলে সেই লিপি

সিংহ হলেন বর্তমান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আরসিপি সিংহের মেয়ে। তাই তিনি কোন সাজা পান নি।

অনেক প্রত্যক্ষদর্শীরা দেখেছিল যে সাধারণ জামাকাপড় পরা একজন ব্যক্তি একটি পুলিসে

ওয়্যারলেশ হাতে নিয়ে ভিড়ের উপর একটি লাঠি চালাচ্ছিলো। অনেক দিন পরেও সেই ব্যক্তির

বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এই কারণে, পুলিশ কর্মকর্তা মুখ্যমন্ত্রী কি ভাবছেন সেই

চিন্তাভাবনা অনুযায়ী কাজ করার পরবর্তী আদেশের জন্য অপেক্ষা করছেন। কিন্তু সন্দেহের

জন্য কোন সুযোগ নেই যে ব্যক্তিটি ইচ্ছাকৃত ভাবে আইপিএসের ইউনিফর্ম পরতেন।

বৌ ডিএসপি নিজের ইউনিফর্ম পরে তার পাশে দাড়িয়ে আছেন

একই সাথে, তার স্ত্রী ও কহলগাঁও, তার প্রকৃত ইউনিফর্মে ফোটো তুলিয়েছেন। এই মহিলা

ডিএসপি জানতেন কে আইন হিসেবে এটি একটি ভূল কাজ। তাই এসডিপিও ঋষু কৃষ্ণা এই

বিতর্কে জড়িয়ে আছেন। অনেক সাবেক আইপিএস কর্মকর্তা আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকার করেছেন

যে এই জাল ইউনিফর্ম পরা মামলায় নারী পুলিশ অফিসারের কর্মকাণ্ডের ব্যবস্থা করা উচিত।

কারণ এটি অপরিহার্য কারণ পুলিশ কাজের কারণে, মহিলা ডিএসপি জানতেন যে এই ধরনের

ইউনিফর্ম পরা অপরাধ। জাতীয় সংবাদটিও সেই ছবিটি পেয়েছে, যার মধ্যে আসলেই আইপিএস

ইউনিফর্মে দেখা যায়। অনুমান করা হয়েছে যে এই ছবিটি সম্ভবত দিল্লিতে পৌঁছেছে অভিযোগের

সাথে। তদন্ত প্রক্রিয়ার সমাপ্তির পরও, পুলিশ সদর দফতর এই পর্যন্ত কোন পদক্ষেপ নেয় নি। 

More from HomeMore posts in Home »
More from অপরাধMore posts in অপরাধ »
More from নতূন খবরMore posts in নতূন খবর »
More from বিহারMore posts in বিহার »
More from ভিডিওMore posts in ভিডিও »

2 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *